দাগনভূঞায় মায়ের পরকিয়ার বলি সন্তান,

দাগনভূঞায় মায়ের পরকিয়ার বলি সন্তান

সংবাদদাতা:দাগনভূঞায় রাজিয়া সুলতানা বৃষ্টি(২৮)ও তার প্রেমিক স্বামীর চক্রান্তের শিকার অবুঝ শিশু সন্তান স্বাধীন(৩)।গতকাল মংঙ্গলবার সন্ধ্যায় সে মারা যায়।স্বাধীনের দাদার অভিযোগ তার মা ও সৎ বাবা মিলে তাকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে। অপরদিকে মা বৃষ্টি ও সৎ বাবা রিয়াদ দাবী করে স্বাধীন হোন্ডার ধাক্কায় মারা যায়।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়,দাগনভূঞা উপজেলার ইয়াকুবপুর ইউনিয়নের বিজয়পুর গ্রামের আবদুল হকের ছেলে আবু ছায়েদ(৩২)সংগে ৯বছর পূ্র্বে দাগনভূঞা পৌরসভার রামানন্দপুর গ্রামের আসলাম ব্যাপারী বাড়ির মিজানুর রহমানের মেয়ে রাজিয়া সুলতানা বৃষ্টি (২৮)বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের কোল আলোকিত করে আসে সামির ও স্বাধীন।বিয়ের পর ছায়েদের পক্ষ থেকে সব ঠিক থাকলেও ঠিক থাকেনি বৃষ্টি।সে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে মামাতো ভাই রিয়াদ(৩৩)সংগে।পরকীয়ার রেশ ধরে চলতি বছরের ৬ফেব্রুয়ারি ছায়েদের সংসার ছেড়ে গোপনে রিয়াদকে বিয়ে করে।
উল্লেখ্য যে,রিয়াদ ৩সন্তানের জনক।তার অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে তার আগের স্ত্রী আত্মহত্যা করে মারা যায়।রিয়াদের অবহেলার শিকার হয়ে কিছুদিন পর তার মেয়েও মারা যায়।বাকী দু’সন্তান নানার বাড়ীতে বড় হচ্ছে।
এদিকে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও বৃষ্টিকে না পেয়ে ছায়েদ দাগনভূঞা থানায় তখন জিডি করে।জিডি নং ২৫৫/২০ তাং ৬/২/২০।
নিহত স্বাধীনের বাবা,দাদা ও সচেতন মহলের দাবী ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হোক।
উল্লেখ্যাং যে,আজ বুধবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য স্বাধীনের মরদেহ সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

Author: MNIF